Latest News

লোকসভায় পাস নাগরিকত্ব সংশোধনী বিল What's New Life এনআরসি আর সিএবি নিয়ে ভয় পাবেন না : মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় What's New Life ​ আজ থেকেই মিলবে ভর্তুকিতে পেঁয়াজ What's New Life ডিসেম্বরেই ঢাকায় চালু হবে চক্রাকার বাস সার্ভিস What's New Life বিশ্বের কনিষ্ঠতম প্রধানমন্ত্রী হলেন সানা মেরিন What's New Life ব্যাঙ্গালুরুতে পেঁয়াজের দাম বেড়ে ২০০ What's New Life ২৮ দিন পর বাড়ি ফিরলেন​ সুর সম্রাজ্ঞী​ লতা মঙ্গেশকর What's New Life ভারত থেকে সাবমেরিন নিচ্ছে মিয়ানমার What's New Life Business School takes Experiential Learning to bigger heights What's New Life CELEBRATE HAWAIIAN FESTIVAL ONLY AT THE DRUNKEN MONKEY What's New Life

নটিংহামে ৪৮ রানে হার বাংলাদেশের

বিশ্বকাপে নিজেদের ষষ্ঠ ম্যাচে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে সর্বোচ্চটা দিয়ে লড়াই চালিয়েও শেষ পর্যন্ত হেরে যায় টাইগাররা। নটিংহামে বাংলাদেশকে ৪৮ রানে হারিয়ে এবারের আসরে নিজেদের পঞ্চম জয় তুলে নেয় অ্যারন ফিঞ্চরা। তবে বাংলাদেশের হারের দিনে পাওয়া একটাই, উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান মিস্টার ডিপেন্ডেবল মুশফিকুর রহীমের সেঞ্চুরি। ৯৫ বলে বিশ্বকাপের প্রথম শতক পান মুশি।
অস্ট্রেলিয়ার দেওয়া ৩৮২ রানের পাহাড়সম লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে নির্ধারিত ৫০ ওভারে পাঁচ উইকেট হারিয়ে ৩৩৩ রান তুলতে সক্ষম হয় টাইগাররা। জবাব দিতে নেমে শুরুতেই উইকেট হারায় বাংলাদেশ। ৮ বলে ১০ রান করে রান আউট হয়ে ফিরে গেছেন বাংলাদেশ দলের ওপেনার সৌম্য সরকার। এরপর ৪০ বলে ৪১ রান করে মার্কাস স্টয়নিসের বলে ডেভিড ওয়ার্নারের তালুবন্দি হয়ে ফিরে গেছেন বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান। দলীয় ১০২ রানে সাকিবের বিদায়র পর ৭৪ বলে ৬২ রান করে মিচেল স্টার্কের বলে বোল্ড হয়ে ফিরে যান ওপেনার তামিম ইকবাল।
তামিমের বিদায়ের পরই বিপদে পড়ে যায় বাংলাদেশ। তামিম ফিরে যান দলীয় ১৪৪ রানে। এরপর উইকেটে এসে আগের ম্যাচে দুর্দান্ত খেলা লিটন কুমার দাসও ফিরে যান; ১৭ বলে তিনটি চারের মারে ২০ রান করেন লিটন।
দলীয় ১৭৫ রানে ৪ উইকেট হারিয়ে চাপে পড়ে বাংলাদেশ। এরপর দুই ভায়রা ভাই মুশফিকুর রহীম ও মাহমুদউল্লাহ রিয়াদের কাঁধে দায়িত্ব এসে পড়ে। দুজন ঠিকঠাক খেলছিলেন; রানের তুলনায় বল কম! তাতে কি দুর্দান্ত লড়াই চালিয়েছেন তারা। একটা সময় জয়ের স্বপ্নও দেখছিল বাংলাদেশ। তবে টাইগারদের শেষটা রাঙাতে পারেননি। দলীয় ৩০২ রানে ৫০ বলে ৬৯ রানের চোখ ধাঁধানো ইনিংস খেলে ফিরে যান মাহমুদউল্লাহ।
মাহমুদউল্লাহর বিদায়ের পর জয়ের আশাটা শেষ হয়ে যায় বাংলাদেশের। এরপর উইকেটে সাব্বির রহমান আসলেও নাথান কোল্টার-নাইলের গতিতে শূন্য রানেই ফিরেন যান একাদশে জায়গা পাওয়া সাব্বির। সঠিক সময়ে নিজেকে প্রমাণ করতে ব্যর্থ হন তিনি!
তবে শেষের দিকে এক প্রান্ত আগলে রাখা মুশি চেষ্টা চালিয়েও শেষ হাসি হাসতে পারেননি। তবে মুশি পেয়েছেন বিশ্বকাপের প্রথম সেঞ্চুরি। আর ক্যারিয়ারের সপ্তম সেঞ্চুরি। শেষের দিকে মাশরাফি বিন মর্তুজাকে সঙ্গে নিয়ে কেবল নিজের সেঞ্চুরিটি পূর্ণ করেন মুশি। শেষপর্যন্ত মুশি অপরাজিত ছিলেন ১০২ রানে।
বল হাতে অজিদের হয়ে দুটি করে উইকেট পেয়েছেন মার্কাস স্টয়িনিস, মিচেল স্টার্ক ও নাথান কোল্টার-নাইল। লিটনের উইকেটটি পেয়েছেন অ্যাডাম জাম্পা।
এর আগে টস জিতে ব্যাট করতে নেমে নির্ধারিত ৫০ ওভারে ৫ উইকেটে ৩৮১ রান তোলে অস্ট্রেলিয়া। বিশ্বকাপ ইতিহাসে এটা অস্ট্রেলিয়ার দ্বিতীয় সর্বোচ্চ সংগ্রহ। ৩৪ ওভার তিন বলে অস্ট্রেলিয়ার সংগ্রহ ছিল ১ উইকেটে ২০০ রান। ৪৩ ওভার তিন বলে সেই অস্ট্রেলিয়া তোলে ১ উইকেটে ৩০০ রান! উইকেট হাতে থাকলে শেষ দশ ওভারের আগে থেকেই যে বোলারদের ওপর চড়াও হওয়া যায় তাই দেখিয়েছে ফিঞ্চ বাহিনী। ওর্য়ানার-ফিঞ্চের ১২১ রানের ওপেনিং জুটির পর ওয়ার্নার-খাওয়াজা দ্বিতীয় উইকেটে গড়েন ১৯২ রানের জুটি। এ বিশ্বকাপের এটাই সর্বোচ্চ রানের জুটি।

নটিংহামে ৪৮ রানে হার বাংলাদেশের
টানা সাত ম্যাচ টস হারের পর জিতলেন অ্যারন ফিঞ্চ। ট্রেন্টব্রিজের ব্যাটিং সহায়ক উইকেটে ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নেন অজি অধিনায়ক। তবে বাংলাদেশের ভাগ্যটা খারাপ ওয়ার্নারের ক্যাচ শুরুতে মিস করায়। ১২ রানে ওয়ার্নারের ক্যাচ ফেলে দেন সাব্বির। এরপরই অজিদের বড় জুটি। প্রথম ১০০ রান তোলে ধীরেসুস্থে। ৫৩ রান করে আউট হন অজি অধিনায়ক ফিঞ্চ। তবে ওয়ার্নার ঠান্ডা মাথায় খেলেন। ১১০ বলে ওয়ার্নার তুলে নেন ক্যরিয়ারের ১৬তম সেঞ্চুরি। এতে অস্ট্রেলিয়ার হয়ে তৃতীয় সর্বোচ্চ সেঞ্চুরির মালিক হন বাঁহাতি ওপেনার। শেষ পর্যন্ত ১৬৬ রানের টর্নেডো ইনিংস খেলে আউট তিনি। অপরপ্রান্তে, ওয়ানডাউনে নামা খাওয়াজা খেলেন ৭২ বলে ৮৯ রানের ঝলমলে ইনিংস। কোনো ছক্কা না মারলেও ১০টি বাউন্ডারি হাঁকান এ বাঁহাতি ব্যাটসম্যান। এরপর গ্লেন ম্যাক্সওয়েলের ১০ বলে ৩২ রানের ঝড়ে সাড়ে ৩০০ রান স্কোরবোর্ডে তুলে নেয় অজিরা ৪৬ ওভার এক বলে।
এরপর ৩২ রান করে রান আউটের শিকার হন ম্যাক্সি। ৭২ বলে ৮৯ রান করে ওসমান খাজা ফেরেন সৌম্যর তৃতীয় শিকার হয়ে। এরপর শেষদিকে মার্কাস স্টয়িনিসের ১১ বলে ১৭ ও অ্যালেক্স ক্যারের অপরাজিত ৮ রানের সুবাধে ৫০ ওভারে ৫ উইকেট হারিয়ে ৩৮১ রান সংগ্রহ করে অস্ট্রেলিয়া।
সংক্ষিপ্ত স্কোর :
অস্ট্রেলিয়া : ৫০ ওভারে ৩৮১/৫ (ওয়ার্নার ১৬৬, ফিঞ্চ ৫৩, খাওয়াজা ৮৯, ম্যাক্সওয়েল ৩২, স্টোয়িনিস ১৭*, স্মিথ ১, ক্যারে ১১*; মাশরাফি ০/৫৬, মুস্তাফিজ ১/৬৯, সাকিব ০/৫০, রুবেল ০/৮৩, মেহেদী মিরাজ ০/৫৯ ও সৌম্য ৩/৫৮)।
বাংলাদেশ : ৫০ ওভারে ৩৩৩/৮ (তামিম ৬২, সৌম্য ১০, সাকিব ৪১, মুশফিক ১০২*, লিটন ২০, মাহমুদউল্লাহ ৬৯, সাব্বির ০, মেহেদী মিরাজ ৬, মাশরাফি ৬; স্টার্ক ২/৫৫, কামিন্স ০/৬৫, ম্যাক্সওয়েল ০/২৫, কোল্টার-নাইল ২/৫৮, স্টয়িনিস ২/৫৪ ও জাম্পা ১/৬৮)।
ফল : অস্ট্রেলিয়া জয়ী ৪৮ রানে।
ম্যাচ সেরা : ডেভিড ওয়ার্নার (১৪৭ বলে ১৬৬ রানের ইনিংস)।

ছবি সংগৃহিত

Comments

KOLKATA WEATHER
Pati Patni Aur Woh Panipat সাগরদ্বীপে যকেরধন সূর্য পৃথিবীর চারিদিকে ঘোরে 3 Knives Out Hotel Mumbai Bohomaan X Ray: The Inner Image Commando 3
What's New Life