Latest News

আজই লোকসভায় নাগরিকত্ব সংশোধনী বিল ২০১৯ পেশ করতে চলেছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী What's New Life সিটিজের দ্বিতীয় ম্যাচে জয় ফিরে ওয়েস্ট ইন্ডিজের সমতা বজায় What's New Life নির্মম কোনো অপরাধ করলে তার পরিণতি প্রত্যাশিত ‘এনকাউন্টার’ হতে পারে : তালাসানি শ্রীনিবাস যাদব What's New Life লোটে ভুনা What's New Life ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডে দিল্লিতে নিহত বেড়ে ৪৩ What's New Life পেঁয়াজের মূল্য বৃদ্ধি নিয়ে কেন্দ্রীয় খাদ্যমন্ত্রীর বিরুদ্ধে মামলা দায়ের What's New Life ত্রিপুরায় ১৭ বছরের তরুণীকে গণধর্ষণ করে পুড়িয়ে হত্যা What's New Life সাপ্তাহিক লগ্নফল - ৮ থেকে ১৪ ডিসেম্বর What's New Life কুরিয়ার সার্ভিস চালু করতে চলেছে উবার What's New Life WINTER SPECIALS AT BUNE-THE COFFEE ROOM What's New Life

সিরিয়া ত্যাগের ঘোষণা হিজবুল্লাহর​

যুদ্ধ বিধ্বস্ত সিরিয়া থেকে আংশিকভাবে সরে যাওয়ার ঘোষণা দিয়েছেন লেবাননের ইরান সমর্থিত শিয়াপন্থি সশস্ত্র গোষ্ঠী হিজবুল্লাহর প্রধান হাসান নসরুল্লাহ। শুক্রবার (১২ জুলাই) দলীয় সম্প্রচার মাধ্যম ‘আল-মানার’ টেলিভিশনে দেওয়া সাক্ষাৎকারে তিনি এ ঘোষণা দেন। সিরিয়ায় আসাদ বাহিনীর সমর্থনে যুদ্ধরত হিজবুল্লাহকে নিয়ে এমনিতেই পশ্চিমা বিশ্ব ও ইসরায়েলের অস্বস্তিতে রয়েছে।
‘আল-মানার’কে দেওয়া সাক্ষাৎকারে হাসান নসরুল্লাহ বলেন, ‘সিরিয়া থেকে আসাদ বাহিনীর সমর্থনে লড়াই করা যোদ্ধাদের সংখ্যা ইতোমধ্যে কমিয়ে আনা হয়েছে। যদিও এখনো​ অঞ্চলটিতে আমাদের উপস্থিতি রয়েছে। তবে এখন সেখানে আর বেশি সংখ্যায় থাকার প্রয়োজন নেই।’
এর আগে ২০১৩ সাল থেকে দেশটিতে আসাদ বাহিনীর পক্ষ থেকে লড়াই করছে ইরান সমর্থিত লেবাননের সশস্ত্র এই শিয়া গোষ্ঠীটি। যদিও এবার ইরান থেকে ঠিক কত সংখ্যক হিজবুল্লাহ সদস্যকে প্রত্যাহার করা হবে সে বিষয়ে সরাসরি হাসান নসরুল্লাহ তেমন কোনো মন্তব্য করেননি।
বিশ্লেষকদের মতে, এমন একটি সময়ে হিজবুল্লাহ প্রধান সিরিয়া থেকে আংশিকভাবে সরে যাওয়ার এই ঘোষণাটি দিলেন যখন মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে ইরানের উত্তেজনা চরমে গিয়ে পৌঁছেছে। যদিও সম্প্রতি ইরান-যুক্তরাষ্ট্র মধ্যকার সম্পর্কে অবনতির ফলে সেখানে যুদ্ধের আশঙ্কা তৈরি হওয়ায় কঠোর হুঁশিয়ারি দিয়েছিলেন হাসান নাসরুল্লাহ।

গত ৩১ মার্চ কুদস দিবস উপলক্ষে দেওয়া এক ভাষণে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র, সৌদি আরব ও ইসরায়েলকে হুঁশিয়ারি দিয়ে তিনি বলেন, ‘ইরানে যুদ্ধ শুরু হলে তা কেবল সেখানেই সীমাবদ্ধ থাকবে না; বরং এই যুদ্ধের আগুন গোটা মধ্যপ্রাচ্যকে গ্রাস করে দেবে।’ হাসান নাসরুল্লাহ তার ভাষণে বলেন, ‘তেহরানের বিরুদ্ধে যুদ্ধ চাপিয়ে দিলে এই সমগ্র অঞ্চল পুড়বে, যুক্তরাষ্ট্রের সব সৈন্য ও স্বার্থ নির্মূল করে দেওয়া হবে। প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প ও তার গোয়েন্দা বাহিনী এটা খুব ভালো করেই জানে যে, ইরানের সঙ্গে যুদ্ধে জড়ালে এর পরিণতিতে মধ্যপ্রাচ্যে মার্কিন স্বার্থ ও তাদের সেনাবাহিনী ধ্বংস হয়ে যাবে। একই সঙ্গে সৌদি শাসক গোষ্ঠী ও ইহুদিবাদী রাষ্ট্র ইসরায়েলের মতো এখনো যারা যুক্তরাষ্ট্রকে সহযোগিতা করছে তাদেরও অবশ্যই এই যুদ্ধের পরিণাম ভোগ করতে হবে।’
বর্তমানে হিজবুল্লাহর ক্ষেপণাস্ত্র শক্তি প্রসঙ্গে নাসরুল্লাহ তার ভাষণে বলেন, ‘আমরা মিথ্যা বলছি না। আমি আবারও গোটা বিশ্বের সামনে বলতে চাই যে, আমাদের কাছে লক্ষ্যে নিখুঁতভাবে আঘাত হানার মতো যথেষ্ট পরিমাণ ক্ষেপণাস্ত্র রয়েছে; যা দিয়ে সমস্ত মধ্যপ্রাচ্যের চেহারা পরিবর্তন করা সম্ভব।’

ছবি সংগৃহিত

Comments

KOLKATA WEATHER
Knives Out Hotel Mumbai Hari Ghosher Gowal Triangle Bohomaan X Ray: The Inner Image Commando 3 21 Bridges Frozen Ford v Ferrari টেকো পূর্ব পশ্চিম দক্ষিণ উত্তর আসবেই ঘরে বাইরে আজ Marjaavaaan Pagalpanti Doctor Sleep Ghoon Bala Terminator: Dark Fate Buro Sadhu Kedara Earthquake And Roller Joker
What's New Life