Latest News

অতিথিদের আমরা উপহার আর রসগোল্লা দিয়ে স্বাগত জানাই, এটা আমাদের ঐতিহ্য : মমতা What's New Life জঙ্গি হামলার আশঙ্কায় সতর্কতা জারি উত্তরপ্রদেশে What's New Life চীনের ইন্টারন্যাশনাল ফ্লিট রিভিউ-এ মহড়ায় বাংলাদেশের যুদ্ধজাহাজ ‘প্রত্যয় What's New Life স্মার্ট বাল্ব আসলে কি What's New Life চিফ জাস্টিস রঞ্জন গগৈকে কালিমালিপ্ত করতে ১.৫ কোটি টাকার প্রস্তাব What's New Life আবার বিস্ফোরণ শ্রীলঙ্কার পুগোদা শহরে What's New Life প্রথমবারের মতো বৈঠকে ভ্লাদিমির পুতিন এবং কিম জং উন What's New Life কিভাবে সুস্থ রাখবেন নিজেকে অ্যালার্জির থেকে, জেনে নিন What's New Life ৩৭ জনের শিরশ্ছেদ সৌদি আরবে What's New Life পাঞ্জাবকে হারিয়ে টুর্নামেন্টে টিকে রইলো আরসিবি What's New Life
ইন্দিরা গান্ধীর স্লোগানেই নির্বাচনী প্রচার রাহুলের

লোকসভা নির্বাচন আসন্ন। সেই লক্ষ্যে ক্ষমতায় গেলে জনগণকে কে কতটা সুবিধা দেবেন, সে বিষয়ে একের পর এক ঘোষণা দিয়ে যাচ্ছে দেশটির প্রধান দুই প্রতিদ্বন্দ্বী দল কংগ্রেস ও বিজেপি। ভোটের রাজনীতিতে নতুন নতুন কৌশল প্রয়োগ চলছে দুদল থেকেই। এবার তেমনই নতুন এক ঘোষণা দিয়ে প্রচার অভিযানে নামলেন কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গান্ধী।

তার অভিযানের নাম ‘গরিবী হটাও’। তিনি প্রতিশ্রুতি দিলেন- কংগ্রেস ক্ষমতায় গেলে ভারতের ৫ কোটি দরিদ্র পরিবারকে মাসে ৬ হাজার টাকা করে প্রদান করবে। এ অর্থ প্রদানের আওতায় আসবে দেশটির ২৫ কোটি দরিদ্র।
আজ (২৬ মার্চ) দলটির ওয়ার্কিং কমিটির বৈঠকের পর টাকার অংকসহ ঘোষণাটি দেন রাহুল গান্ধী। তিনি বলেন, ‘আজ ঐতিহাসিক দিন। বছরে ৭২ হাজার টাকা দেয়া হবে প্রতি দরিদ্র পরিবারকে। জাত-ধর্ম, শহর-গ্রাম নির্বিশেষে এভাবে পাঁচ কোটি পরিবার পাবে এই অর্থ। নরেন্দ্র মোদি ধনীদের টাকা দিক, আমরা দেব গরিবদের। পৃথিবীর সবচেয়ে বড় প্রকল্প হবে এটি।’

১৯৭১ সালে ইন্দিরা গান্ধীও এ স্লোগান ও প্রতিশ্রুতি নিয়েই মাঠে নেমেছিলেন এবং জয়লাভ করেছিলেন। এবার রাহুলও একই রকম প্রতিশ্রুতি ও স্লোগানে নামলেন। এমনটিই জানিয়েছেন ভারতের রাজনীতি বিশ্লেষকরা।
সম্প্রতি মোদি সরকার ভারতের কৃষকদের বছরে ৬ হাজার টাকা দেয়ার ঘোষণাকে টেক্কা দিতেই রাহুল এমন ঘোষণা দিয়েছেন বলে মন্তব্য করেছেন রাজনীতি বিশ্লেষকরা।
তবে রাহুলের এমন ঘোষণায় বিজেপি বেশ অস্বস্তিতে পড়েছে বলে জানিয়েছেন তারা। রাহুলের এ ঘোষণার পরই দেশটির অর্থমন্ত্রী অরুণ জেটলি সংবাদ সম্মেলন করেছেন।
সেখানে তিনি প্রশ্ন ছুড়েন- পাঁচ কোটি পরিবারকে বছরে ৭২ হাজার টাকা করে দিলে প্রয়োজন পড়বে তিন লাখ ৬০ হাজার কোটি টাকা। এত টাকা কোথায় পাবে ভারত সরকার?
এর পর তিনি রাহুলের এমন ঘোষণাকে জনগণের সঙ্গে ছলনা ও মিথ্যা আশ্বাস বলে মন্তব্য করেছেন।
তিনি বলেন, ভারতের দরিদ্রদের জন্য বছরে প্রায় সাত লাখ কোটি টাকা বরাদ্দ করছে বিজেপি সরকার। সে হিসাবে রাহুলের এ ঘোষণা ছলনা ছাড়া আর কিছুই নয়।

বিজেপি নেতা রবিশঙ্কর প্রসাদ বলেন, ‘এতদিন পর গরিবদের নিয়ে রাহুল গান্ধীর টনক নড়ল?’
বিজেপির মতে, দেশটির বর্তমান ভর্তুকি না তুলে কোনোমতেই রাহুলের এ প্রকল্প রূপায়ন সম্ভব নয়।
বিজেপি নেতাদের এমন বক্তব্যের জবাবে কংগ্রেসের রণদীপ সিংহ সুরজেওয়ালা বলেন, ‘মোদি সরকার তাদের গুটিকয়েক বন্ধুর ৩.১৭ লাখ কোটি টাকা ঋণ মাফ করে দিয়েছেন। অথচ দারিদ্র্যতা মুক্তির বিশ্বের সবচেয়ে বড় এ প্রকল্পের বিরোধিতা করছেন তারা।’
ভারতীয় গণমাধ্যম আনন্দবাজার জানিয়েছে, কংগ্রেসের দেয়া এমন প্রকল্পে ভারতের যেসব দরিদ্র পরিবার মাসে ১২ হাজার টাকার নিচে আয় করেন তাদেরই ৬ হাজার টাকা করে অনুদান দেবে সরকার।

ছবি সৌজন্যে : ইয়াহু নিউজ ইন্ডিয়া

Comments

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Romeo Akbar Walter Kalank The Tashkent Files Vinci Da Tarikh Misha The Curse Of The Weeping Woman Dumbo Shazam
What's New Life
Inline
Inline