Latest News

চিফ জাস্টিস রঞ্জন গগৈকে কালিমালিপ্ত করতে ১.৫ কোটি টাকার প্রস্তাব What's New Life আবার বিস্ফোরণ শ্রীলঙ্কার পুগোদা শহরে What's New Life প্রথমবারের মতো বৈঠকে ভ্লাদিমির পুতিন এবং কিম জং উন What's New Life কিভাবে সুস্থ রাখবেন নিজেকে অ্যালার্জির থেকে, জেনে নিন What's New Life ৩৭ জনের শিরশ্ছেদ সৌদি আরবে What's New Life পাঞ্জাবকে হারিয়ে টুর্নামেন্টে টিকে রইলো আরসিবি What's New Life ইকোনমি ক্লাসে আমির খান What's New Life শ্রীলঙ্কার পুলিশ প্রধান ও প্রতিরক্ষা সচিবের পদত্যাগের নির্দেশ What's New Life একাধিকবার নির্বাচনি জনসভায় বালাকোট প্রসঙ্গ, মোদীর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেবে নির্বাচন কমিশন What's New Life শ্রীলঙ্কায় আবার বিস্ফোরণ স্যাভয় সিনেমা হলের সামনে What's New Life
পাওয়া গেল লাল-হলুদের ১২ টি অজানা ট্রফির হদিশ

ট্রফিগুলো ইস্টবেঙ্গল ক্লাব জিতেছিল সুদূর অতীতে। কিন্তু এতদিন এই ট্রফি জয়ের সংবাদ ও তথ্য্ চাপা পড়ে ছিলো পুরোনো সংবাদপত্র ও বইয়ের মধ্যে। ইস্টবেঙ্গল ক্লাবের ১২টি ট্রফি জয়ের এই তথ্য সম্প্রতি প্রকাশ্যে এনেছেন ইস্টবেঙ্গল ক্লাবের ইতিহাস নিয়ে অনুসন্ধিৎসু ও গবেষণারত এবং ইস্টবেঙ্গল ফ্যান-ক্লাব লাল-হলুদ পৃথিবীর প্রতিষ্ঠাতা-সচিব প্রশান্ত গুপ্ত। এর আগে ইস্টবেঙ্গল ক্লাবের এই ট্রফি জয়ের সংবাদ শুধু সমর্থকদের কাছেই অজানা ছিলো তাই নয়, পরিসংখ্যানবিদদের প্রকাশিত তথ্যতেও এতদিন এগুলোর কোনো উপস্থিতি ছিলো না।

হোয়াটস নিউ লাইফের সাথে এব্যাপারে কথাপ্রসঙ্গে প্রশান্ত গুপ্ত বললেন, ১৯২০ সালের ১লা আগস্ট ইস্টবেঙ্গল ক্লাবের জন্ম হয়েছিল। জন্মলগ্ন থেকেই ইস্টবেঙ্গল ক্লাব ধার ও ভারে ভারতের অন্যতম শ্রেষ্ঠ ও অগ্রণী ফুটবল ক্লাব হিসাবে যোগ্যতার প্রমাণ দেখিয়ে এসেছে। আর জন্মলগ্ন থেকেই ইস্টবেঙ্গলের অপরিসীম ট্রফির খিদে ছিল, ইতিহাস যার সাক্ষ্য বহন করে। লাল-হলুদের সমর্থক মাত্রই জানেন, জন্মের কয়েকদিনের মধ্যেই ইস্টবেঙ্গল হারকিউলিস কাপে বিজয়ী হয়েছিল। পরের বছর১৯২১ সালে ইস্টবেঙ্গল শচীন শিল্ড জিতেছিল ফাইনালে এরিয়ানসকে ৫-০ হারিয়ে।  ১৯২৪ সালে মোহনবাগানকে ১-০পরাজিত করে ইস্টবেঙ্গল কোচবিহার কাপ জিতেছিল। এছাড়াও ইস্টবেঙ্গল ক্লাব ১৯৪২, ১৯৪৩, ১৯৪৫, ১৯৬০-এ কোচবিহার কাপ, ১৯৪২-এ গিরিজা শিল্ড এবং ১৯৬০, ১৯৬৬, ১৯৭৫ ও ১৯৭৬-এ ট্রেডস কাপ জিতেছিল। কিছুদিন আগে ইস্টবেঙ্গল ক্লাবের এই ১১টি ট্রফি জয়ের সংবাদ  ক্লাব-সচিব কল্যাণ মজুমদারের কাছে আমি তথ্যসহ পেশ করেছি। সচিব এই ট্রফি জয়ের তথ্য ইস্টবেঙ্গল ক্লাবের প্রামাণ্য নথিগুলোতে অন্তর্ভুক্ত করার জন্য পদক্ষেপ নেওয়ার আশ্বাস দিয়েছিলেন এবং তা বাস্তবায়িতও হয়েছে। ২০১৭-এর ১ লা আগস্ট প্রকাশিত ইস্টবেঙ্গল ক্লাবের অ্যালম্যানাকে(ভল্যুম VI) ইস্টবেঙ্গলের ট্রফি জয়ের তালিকায় ১১টা ট্রফি অন্তর্ভুক্ত হয়েছে।

এ ছাড়াও ১৯২১ সালে ইস্টবেঙ্গলের জেতা খগেন্দ্র শিল্ডের সন্ধান পাওয়া গেছে।  এই প্রতিযোগিতায় ইস্টবেঙ্গল মোহনবাগানকে ২-১ গোলে পরাজিত করেছিল। এটিই ছিল মোহনবাগানের বিরুদ্ধে ইস্টবেঙ্গলের প্রথম জয়।

আবেগমথিত গলায় প্রশান্তবাবু জানালেন, “ইস্টবেঙ্গলের এই ট্রফিগুলো জয়ের  সন্ধানের সংবাদে আমাদের সমর্থকরা আনন্দিত হলেই আমার ভালো লাগবে।  তবে আর একটি তথ্য আমি প্রথম জানাচ্ছি হোয়াটস নিউ লাইফকে – সেটা হলো ১৯২১ সালেই ইস্টবেঙ্গল ৭টা ট্রফি জিতেছিলো বলে আমি জানতে পেরেছি। ১৯২০-তে তৈরি হওয়া ক্লাবটা ১৯২১-এই ৭টা ট্রফি জিতে নিয়েছিলো! চিন্তা করতে পারেন? আমার তো ভাবলেই শরীরে একটা শিহরণ হয়! এই ৭-টা ট্রফির মধ্যে শচীন শিল্ড ও খগেন্দ্র শিল্ডের কথা জানতে পেরেছি। বাকি ৫টা ট্রফির নাম ও সেগুলোর সম্বন্ধে বিশদ তথ্য জানতে হবে। আমার অনুমান,সঠিকভাবে অনুসন্ধান করলে প্রাক্-স্বাধীনতা যুগে ইস্টবেঙ্গল ক্লাবের আরো অনেক অনেক  ট্রফি জয়ের সন্ধান পাওয়া যাবে। তাই,  ১১টা ট্রফি জয়ের তথ্য প্রকাশ্যে আনতে পেরেছি বলে সন্তুষ্টির কোনো জায়গা নেই। বরং মনে হচ্ছে, কাজ আরো বেড়ে গেলো। যতদিন না ইস্টবেঙ্গল ক্লাবের বাকি ট্রফিগুলোর হদিশ না পাচ্ছি, ততদিন শান্তি ও তৃপ্তি পাবো না।”

 

Comments

পাওয়া গেল লাল-হলুদের ১২ টি অজানা ট্রফির হদিশ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Romeo Akbar Walter Kalank The Tashkent Files Vinci Da Tarikh Misha The Curse Of The Weeping Woman Dumbo Shazam
What's New Life
Inline
Inline