Latest News

ইমরান খানের বক্তব্যকে সমর্থন আফ্রিদির What's New Life ২১ জনকে একুশে পদক What's New Life ইজরায়েল ভারতকে নিঃশর্ত সহায়তা করবে সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে What's New Life পাকিস্তানকে ভেঙে তিন টুকরো করা উচিৎ : বাবা রামদেব What's New Life ফের হুমকি জইশ নেতার What's New Life বিস্ফোরক পাক প্রধান What's New Life অস্ত্র হাতে দেখলেই এনকাউন্টার What's New Life ‘মাল্টি প্যারামিটার ফেজড অ্যারি ওয়েদার রাডার’ What's New Life পাকিস্তানি নাগরিকদের দেশ ছাড়ার নির্দেশ What's New Life চিকেন পক্স হলে কিভাবে যত্ন নেবেন What's New Life
স্প্যানিশ কাপে সেভিয়েতকে উড়িয়ে সেমিতে বার্সা

পিএসজির কাছে প্রথম লেগে হারের ধাক্কা সামলে অবিশ্বাস্যভাবে ঘুরে দাঁড়ালো বার্সেলোনা। কিছু করবে—এই স্বপ্ন দেখতে সাহস করছেন না প্রবল আশাবাদী বার্সা সমর্থকও। চ্যাম্পিয়নস লিগের ইতিহাসেই নকআউট পর্বে ৪ গোলের ঘাটতি পুষিয়ে সেভিয়াকে উড়িয়ে কোপা দেল রের সেমি-ফাইনালে উঠলো বার্সা।

বুধবার (৩০ জানুয়ারি) রাতে কোয়ার্টার-ফাইনালের ফিরতি পর্বের কাম্প নউয়ে ম্যাচটি ৬-১ গোলে জিতেছে কাতালান ক্লাবটি। দুই লেগ মিলিয়ে তাদের জয় ৬-৩ ব্যবধানে। গত সপ্তাহে প্রথম পর্বে ঘরের মাঠে ২-০ গোলে জিতেছিল সেভিয়া।

দুই গোলে পিছিয়ে থেকে মাঠে নামা বার্সেলোনার শুরুটা হয় দারুণ। ত্রয়োদশ মিনিটে ফিলিপে কৌতিনিয়োর স্পট কিকে এগিয়ে যায় তারা। লিওনেল মেসি ডি-বক্সে ফাউলের শিকার হলে পেনাল্টির বাঁশি বাজিয়েছিলেন রেফারি।

২৪তম মিনিটে স্প্যানিশ মিডফিল্ডার রোকি মেসাকে ডি-বক্সে ডিফেন্ডার জেরার্দ পিকে ফাউল করলে পেনাল্টি পায় সেভিয়া। তবে এভার বানেগার স্পট কিক বাঁ দিকে ঝাঁপিয়ে ঠেকিয়ে দেন বার্সেলোনার দ্বিতীয় পছন্দের গোলরক্ষক ইয়াসপের সিলেসেন।

৩১তম মিনিটে ইভান রাকিতিচের গোলে দুই লেগ মিলিয়ে ২-২এ সমতায় ফেরে বার্সেলোনা। আর্থারের বাড়ানো বলে ছুটে এসে আলতো একটা টোকা দেন ক্রোয়াট মিডফিল্ডার, আগুয়ান গোলরক্ষককে ফাঁকি দিয়ে বল খুঁজে পায় ঠিকানা।

দ্বিতীয়ার্ধের অষ্টম মিনিটে হেডে নিজের দ্বিতীয় গোলটি করেন ব্রাজিলিয়ান মিডফিল্ডার কৌতিনিয়ো। পরের মিনিটেই মেসির পাস পেয়ে দলের চতুর্থ গোলটি করেন সের্হিও রবের্তো। দুই লেগ মিলিয়ে ৪-২এ এগিয়ে যায় বার্সেলোনা।

এদিকে ৬৭তম মিনিটে এভার বানেগার পাস পেয়ে বল জালে পাঠিয়ে ব্যবধান কমান ব্রাজিলিয়ান ডিফেন্ডার গিলের্মো আরানা। ঘুরে দাঁড়ানোর আশা জাড়ে সেভিয়া শিবিরে। তবে বাকি সময়ে তেমন কিছুই হয়নি। উল্টো শেষ দিকে আরও দুবার জালে বল জড়িয়ে বড় ব্যবধানের জয় নিয়ে লক্ষ্যে পা রাখে বার্সেলোনা।

তবে নজিরবিহীন ৮৯তম মিনিটে বাঁ দিক থেকে জর্দি আলবার দারুণ ক্রসে টোকা দিয়ে পঞ্চম গোলটি করেন লুইস সুয়ারেস। আর যোগ করা সময়ের দ্বিতীয় মিনিটে দারুণ পাসিং ফুটবলের পসরা সাজিয়ে প্রতিপক্ষের কফিনে শেষ পেরেকটি ঠুকে দেন মেসি। ডি-বক্সে আলবার পাস পেয়ে এক জনকে কাটিয়ে বাঁ পায়ের শটে গোলটি করেন বার্সেলোনা অধিনায়ক।

দিনের আরেক ম্যাচে ঘরের মাঠে এস্পানিওলকে ৩-১ গোলে হারিয়ে দুই লেগ মিলিয়ে ৪-২ ব্যবধানে এগিয়ে শেষ চারে উঠেছে রিয়াল বেতিস।

Comments

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

URI : The Surgical Strike Manikarnika Gully Boy Ek ladki ko dekha to aisa laga ভবিষ্যতের ভুত তৃতীয় অধ্যায় বাচ্চা শ্বশুর প্রেম আমার ২ Alita Battle Angel The wife Black panther
What's New Life
Inline
Inline